অস্বাভাবিক সম্পদ বৃদ্ধি প্রার্থীদের নজরে রাখছে দুদক « বিডিনিউজ৯৯৯ডটকম

হলফনামার তথ্য নিয়ে এখনই কোনো পদক্ষেপ নেবে না দুদক

অস্বাভাবিক সম্পদ বৃদ্ধি প্রার্থীদের নজরে রাখছে দুদক

অনলাইন নিউজ ডেস্ক
আপডেটঃ ৭ ডিসেম্বর, ২০২৩ | ৯:৫১
অনলাইন নিউজ ডেস্ক
আপডেটঃ ৭ ডিসেম্বর, ২০২৩ | ৯:৫১
Link Copied!

নির্বাচনী হলফনামায় যাঁদের অস্বাভাবিক সম্পদ বৃদ্ধি পেয়েছে, তাঁদের বিষয়ে এখনই কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আজ বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) দুদকের প্রধান কার্যালয়ে আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস উপলক্ষে দুদকের কর্মপরিকল্পনা-সংক্রান্ত এক সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির সচিব মো. মাহবুব হোসেন এ কথা জানান।

মাহবুব হোসেন বলেন, কমিশন তার ম্যান্ডেট অনুযায়ী কাজ করে। নির্বাচনকে সামনে রেখে বিশেষ কিছু করার পরিকল্পনা নেই দুদকের। হলফনামায় যাঁদের অস্বাভাবিক তথ্যের সম্পদের তথ্য প্রকাশ পেয়েছে, তাঁদের বিষয়ে এখনই কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার পরিকল্পনা নেই।

বিজ্ঞাপন

নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া প্রার্থীদের হলফনামা ধরে দুদক কাজ করবে কি না জানতে চাইলে মাহবুব হোসেন বলেন, ‘নির্বাচন আলাদা বিষয়। ভোট নির্বাচন কমিশন করে থাকে। কমিশন তার আইন অনুযায়ী তার ওপরে যে ম্যান্ডেট দেওয়া থাকে সেই আলোকে কাজ করে। নির্বাচনকে উদ্দেশ্য করে স্পেসিফিক কিছু করার সুযোগ নাই। ইসি যদি কোনো কিছু জানতে চান, কোনো কিছু বলেন সেই ক্ষেত্রে কমিশনের আইন মোতাবেক যা করার দরকার তা করবে। কমিশন ওই… এই… মানে এ জাতীয় কোনো কার্যক্রমের পরিকল্পনা এখানে নেই।’

এর আগে হলফনামা ধরে কমিশন কাজ করেছে, এবার ইসির কাছে কমিশন কোনো তথ্য চাইবে কি না বা হলফনানামা ধরে কমিশন কাজ করবে কি না—জানতে চাইলে সচিব বলেন, ‘এ বিষয়ে একটা মতামত আমরা দিতে পারি। এ বিষয়ে কোনো গাইড লাইন বা নির্দেশনা থাকলে তা সেটি কমিশনের তরফ থেকে আসতে হবে। হলফনামা যেটি দাখিল করা হয়েছে, গণমাধ্যমের মাধ্যমে সবাই জেনেছে—তার মানে এখনই যে সেটিকে ধরব বা তার পেছনে দৌড়াব, বিষয়টা এমন না। কারও বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকলে কমিশন আইন মোতাবেক অনুসন্ধানের ক্ষেত্রে এই তথ্যগুলো অবশ্যই কাজে আসবে। প্রয়োজনে তখন বিবেচনায় নেওয়া হবে।’

দুদকের নীতির কোনো পরিবর্তন হয়নি জানিয়ে সচিব বলেন, ‘আইনে বলে দেওয়া আছে কী করণীয় কী বর্জনীয়। হলফ নামা নিয়ে সঙ্গে সঙ্গে কাজ করব বিষয়টি এমন না।’

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয় ও তৃতীয় শ্রেণির কর্মকর্তাদের অবৈধ সম্পদে মামলা হলেও হলফনামায় যাঁদের অস্বাভাবিক সম্পদ বেড়েছে, তাঁদের কিছু করা হয় না—এটা ডাবল স্ট্যান্ডার্ড হলো কি না জানতে চাইলে দুদক সচিব বলেন, এটা ডাবল স্ট্যান্ডার্ড না। কোনো অভিযোগ আসলে কমিশন যা করার দরকার তা-ই করে। কমিশন আইন মোতাবেক যে পদক্ষেপ নেওয়া দরকার সেই পদক্ষেপটি তারা নেবে।

সংবাদ সম্মেলনে আগামী শনিবার আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস উপলক্ষে দুদকের কর্মপরিকল্পনার বিষয়ে অবগত করেন সচিব মাহবুব হোসেন। তিনি জানান, দিনটি উপলক্ষে কমিশন প্রতিবারের মতো মানববন্ধন করছে না। তবে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন দুদকের আলোচনা সভায় সশরীরে থাকার বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন।

মাহবুব হোসেন জানান, ৯ ডিসেম্বর বেলা ১১টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি যোগ দেবেন। এ ছাড়া দিনব্যাপী দুদকের জেলা কার্যালয়গুলোতে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

বিষয়ঃ: